হুঁশিয়ারি সুকান্তর , ‘তৃণমূল রক্তের হোলি খেললে, বিজেপিকেও খেলতে হবে’,

হুঁশিয়ারি সুকান্তর , ‘তৃণমূল রক্তের হোলি খেললে, বিজেপিকেও খেলতে হবে’, পঞ্চায়েত নির্বাচন দোরগোড়ায়। মনোনয়নপর্ব থেকেই যে অধ্যায় শুরু হয়েছে, তা এখনও অব্যহত। পঞ্চায়েত ভোটে এখনও পর্যন্ত ২০ দিনে ৬ জেলায় খুন ১১ জন। কিন্তু কমিশনের তালিকায় মৃতের সংখ্যা ৫। বাংলার ভোটে রোজই খুনোখুনি, বোমাবাজি, গুলি। এরই মধ্যে শাসকদলকে হুঁশিয়ারি দিলেন বিরোধী বিজেপি নেতৃত্ব। “যদি তৃণমূল ভেবে থাকে, রক্তের হোলি খেলবে, তাহলে তো বিজেপিকেও খেলতে হবে।” বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদারের মন্তব্য ঘিরে শুরু বিতর্ক। বৃহস্পতিবার নদিয়ার নবদ্বীপে প্রার্থীদের সমর্থনে মিছিলে অংশ নেন সুকান্ত মজুমদার। তিনি বলেন, “যদি তৃণমূল কংগ্রেস ভাবে রক্তের হোলি খেলবে, তাহলে বিজেপিকেও সেই খেলাতে নামতে হবে। তখন যেন আমাদের কেউ দোষ না দেয়। যে বিজেপি আইন-শৃঙ্খলা মেনে চলছে না। কমিশন ব্যবস্থা না নিলে বিজেপি বাধ্য হবে ব্যবস্থা নিতে।”

 

 

 

 

 

 

কোথাও বিরোধী প্রার্থীদের মারধর এবং হুমকি দেওয়ার অভিযোগ করছে শাসকদলের বিরুদ্ধে। গতকাল মেদিনীপুরের সবংয়ে বিজেপি বুথ সভাপতি ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার হয়। সেই প্রসঙ্গেও শাসকদলকে বিঁধেছেন সুকান্ত মজুমদার। সীমান্তে অশান্তি নিয়েও শাসকদলের কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছেন সুকান্ত। কোচবিহারের দিনহাটা গত কয়েক দিনে বারবার উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে। তাঁর কথায়, যতদিন গুন্ডারা তৃণমূলে থাকবে, ততদিন এই সংঘর্ষ চলবে। তবে মুখ্যমন্ত্রীর শারীরিক সুস্থতা কামনা করেছেন তিনি। যদিও সুকান্তর বক্তব্য নিয়ে এখনও পর্যন্ত তৃণমূলের তরফে কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

 

 

 

 

 

আরও পড়ুন –   ইলিশ খুঁজতে গিয়ে মাঝ সমুদ্রে ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতার মুখে মৎস্যজীবীরা,

 

 

বৃহস্পতিবার নবদ্বীপ শ্যামপুর বাজার থেকে রাওতারা পর্যন্ত প্রায় ১২ কিলোমিটার দলীয় প্রার্থীদের সমর্থনে মিছিল করেন সুকান্ত মজুমদার। মনোনয়নপর্ব থেকেই রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে অশান্তি খবর আসছে। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে প্রতিদিনই ভাঙচুর, হামলা, বোমাবাজি, গুলিচালনার অভিযোগ আসছে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই কাঠগড়ায় শাসকদল।

 

( সব খবর , ঠিক খবর , প্রত্যেক মুহূর্তে ফলো করুন Facebook পেজ এবং Youtube )