এবার নয়া দুর্নীতি নিয়ে বোমা ফাটালেন দিলীপ ঘোষ, কি সেই দুর্নীতি

এবার নয়া দুর্নীতি নিয়ে বোমা ফাটালেন দিলীপ ঘোষ, কি সেই দুর্নীতি। বিজেপির সর্বভারতীয় সহ সভাপতি এবার আরও এক নিয়োগ দুর্নীতি সামনে এনে নিশানা করলেন তৃণমূলের পশ্চিম মেদিনীপুর জেলা কো-অর্ডিনেটর অজিত মাইতিকে। জেলা পরিষদে নিয়োগ দুর্নীতিতে অজিত মাইতির নাম জড়ালেন দিলীপ ঘোষ। তাঁর অভিযোগ, জেলা পরিষদের চাকরি দেবে বলে বহু লোকের কাছে টাকা নিয়েছেন জেলা তৃণমূলের কো-অর্ডিনেটর।

 

অজিত মাইতি জেলা তৃণমূলের কো-অর্ডিনেটর আবার জেলা পরিষদের সহ-সভাপতি। দিলীপ ঘোষ বলেন, তিনি জেলা পরিষদে চাকরি দেওয়ার নাম করে অনেকের কাছ থেকে টাকা নিয়েছেন বলে আমাদের কাছে তথ্য আছে। তাই তাঁর হুঁশিয়ারি, বড় বড় কথা বলবেন না। একিদন সব প্রকাশ পাবে। অজিতকে এভাবেই নিশানা করেন দিলীপ ঘোষ। পশ্চিম মেদিনীপুরের তৃণমূল নেতা অজিত মাইতির বিরুদ্ধে দিলীপ ঘোষ এই বিস্ফোরক অভিযোগ করেই ক্ষান্ত হননি দিলীপ ঘোষ।

আরও পড়ুন – ভারত জোড়ো অভিযানের পরে এবার হাত সে হাত জোড়ো অভিযান

বিজেপি বিধায়ক হিরণ চট্টোপাধ্যায় ও অজিত মাইতির ভাইরাল ছবি নিয়েও তিনি কটাক্ষ করেন। দিলীপের হুঁশিয়ারি, বিজেপির তারকা বিধায়কের প্রত্যাবর্তনের আগে অজিতবাবু না গায়েব হয়ে যান। দেখুন না, তাঁর বাড়িতে কে আসেন। দিলীপ ঘোষের বিস্ফোরক অভিযোগের পাল্টা তৃণমূল নেতা অজিত মাইতি বলেন, আমাদের টাকা খুঁজে পাচ্ছেন না। তাই এসব কথা বলছেন। দিলীপবাবু কোনও নিয়ম কানুন জানেন না। তাই তিনি মাঝে মধ্যে পাগলের প্রলাপ বকেন। জেলা পরিষদের চাকরি দেওয়ার এক্তিয়ার আমার নেই। তিনি পাল্টা বলেন, দিলীপ ঘোষের নামে একাধিক দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে।

 

আমরা বিজেপির মতো নই বলে বলছি না সিআইডি দিয়ে ধরে নেবো। মানুষই এর জবাব দেবে। সম্প্রতি বিজেপি বিধায়ক হিরণ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে তৃণমূল নেতার বিতর্কিত ছবি ভাইরাল হয়। তারপর বিজেপি বিধায়কের দলবদলের জল্পনা মাথাচাড়া দেওয়ার পর দুর্নীতির অভিযোগে তপ্ত হয় পস্চিম মেদিনীপুর জেলার রাজনীতি। রবিবার সকালে পশ্চিম মেদিনীপুরের চন্দ্রকোনা রোডে চা চক্রে অংশ নিয়ে দিলীপ ঘোষ দুর্নীতিরতিরে বিদ্ধ করার পাশাপাশি নানা বিষয়ে কটাক্ষ ছুড়ে দেন তৃণমূলকে। অজিত মাইতির পাশাপাশি তৃণমূলের মন্ত্রী মানষ ভূঁইয়াকে ‘আহাম্মক’ বলে কটাক্ষ করেন বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি দিলীপ ঘোষ। সেখানেও দুর্নীতি বিষয়ক খোঁচা দিলেন তিনি। বোমা ফাটালেন