উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪ সিনিয়র ছাত্রকে হস্টেল ছাড়ার নির্দেশ উপাচার্যের,

উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের ৪ সিনিয়র ছাত্রকে হস্টেল ছাড়ার নির্দেশ উপাচার্যের, যাদবপুরে ছাত্রের রহস্যমৃত্যুর ঘটনায় তোলপাড় চলছে গোটা রাজ্যে। ব়্যাগিংয়ের কথা উঠে আসতেই সতর্ক হয়েছে অন্যান্য একাধিক বিশ্ববিদ্যালয় (University)। পাশাপাশি হস্টেলগুলিতে প্রাক্তনীদের দৌরাত্ম্য ঠেকাতে নেওয়া হচ্ছে একাধিক ব্যবস্থা। যাদবপুরের ঘটনা থেকে শিক্ষা নিয়ে এবার নড়েচড়ে বসল উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় (North Bengal University) কর্তৃপক্ষ। এখনও যেখানে যে সমস্ত প্রাক্তনীরা ঘর দখল করে রয়ে গিয়েছেন তাঁদের তুলতে নেওয়া হচ্ছে উদ্যোগ। হস্টেলে হস্টেলে জায়গা দখল করে বসে থাকা ছাত্রদের চিহ্নিত করছে NBU কর্তৃপক্ষ। চার সিনিয়র ছাত্রকে চিহ্নিত করা হয়েছে বলে খবর। সূত্রের খবর, এরা প্রত্যেকেই জোর করেই হস্টেলে আছেন দীর্ঘদিন থেকে। সকলেই অনেকদিন আগেই পাশ আউট হয়ে গিয়েছেন বলে খবর।

 

 

 

 

 

 

 

যদিও বাম ছাত্র সংগঠন DSO-এর দাবি, শুধু সিসিটিভি লাগালেই হবে না। র‍্যাগিং রুখতে নবাগত ছাত্রছাত্রীদের আলাদা জায়গায় রাখতে হবে। জোর দিতে হবে সারপ্রাইজ ভিজিটে। পরিচয়, বা ইন্ট্রো দেওয়ার নামে র‍্যাগিংয়ের প্রবণতা বন্ধে এগিয়ে আসতে হবে অধ্যাপকদেরও।

 

 

 

 

আরও পড়ুন – জি-২০ বৈঠকে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব কি বললেন ?

 

 

 

 

 

ইতিমধ্যেই তাঁদের হস্টেল ছাড়তে নির্দেশ দিয়েছেন উপাচার্য রথীন বন্দোপাধ্যায়। একইসঙ্গে উপাচার্য জানিয়েছেন, ছাত্র ভর্তির নামে হেল্প ডেস্কের আছিলায় দাদাগিরিও আর বরদাস্ত করবে না বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। হেল্প ডেস্ক বসানোয় আপত্তি না থাকলেও জারি করা হচ্ছে একগুচ্ছ নিয়ম। কারা হেল্প ডেস্কে বসবেন তাঁদের নাম, ফটো এবং তাঁরা কি নিয়ে পড়াশোনা করেন তা কর্তৃপক্ষকে আগাম জানাতে হবে বলে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছে৷ কর্তৃপক্ষের দাবি, এর ফলে র‍্যাগিং-সহ নবাগতদের উপর অন্যান্য দাদাগিরির প্রবণতা কমানো যাবে। একইসঙ্গে জোর দেওয়া হচ্ছে ক্যাম্পাসে আরও বেশি করে সিসিটিভি বসানোর উপরেও। তৈরি করা হচ্ছে একাধিক অ্যান্টি ব়্যাগিং স্কোয়াডও।

 

( সব খবর, ঠিক খবর, প্রত্যেক মুহূর্তে ফলো করুন Facebook পেজ এবং Youtube )