শান্তিপুরে BJP-র মণ্ডল সভাপতির বাড়ির সামনে পড়ে সাদা থান-গীতা- মিষ্টি!

শান্তিপুরে BJP-র মণ্ডল সভাপতির বাড়ির সামনে পড়ে সাদা থান-গীতা- মিষ্টি!BJP-র মণ্ডল সভাপতি তথা পঞ্চায়েত সমিতির প্রার্থীর বাড়ির সামনে পড়ে রয়েছে সাদা থান কাপড়!সঙ্গে রয়েছে গীতা,মিষ্টি এবং ধূপকাঠি।ওই প্রার্থীর অভিযোগ,তাঁর পরিবারকে আতঙ্কিত করতেই শাসকদল এই ঘটনা ঘটিয়েছে।নির্বাচনের আগের দিন এই ঘটনা ঘিরে রীতিমতো চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়। ঘটনাটি নদিয়ার শান্তিপুর থানার ফুলিয়া এলাকার।রাত পোহালেই পঞ্চায়েত নির্বাচন।এবারের নির্বাচনের দিন ঘোষণা হওয়ার পর থেকেই গোটা রাজ্য জুড়ে বিরোধীরা শাসক দলের বিরুদ্ধে সন্ত্রাসের অভিযোগ করছে।

 

 

 

 

 

 

BJP প্রার্থী চঞ্চল চক্রবর্তীর মা মীরা চক্রবর্তী জানান,‘সকালে কয়েকজন এলাকারই মহিলা চিৎকার চেঁচামেচি করে আমাকে ডাকতে থাকে।আমি গেটের বাইরে গিয়ে দেখি ওইসব জিনিসপত্র পড়ে রয়েছে।যেহেতু আমার ছেলে BJP করে এবং ভোটে দাঁড়িয়েছে সেই কারণেই এই ঘটনা ঘটিয়েছে তৃণমূল।রাত পোহালেই নির্বাচন সেই কারণে আমরা চরম আতঙ্কে দিন কাটাচ্ছি’।অন্যদিকে এই ঘটনা পুরোপুরি অস্বীকার করেছেন ২৮ নম্বর ওয়ার্ডের পঞ্চায়েত সমিতির তৃণমূল প্রার্থী উৎপল বসাক।তিনি বলেন, ‘তৃণমূল কখনও এই শিক্ষা লাভ করেনি।আমরা মমতা দিদি এবং অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে রাজনীতি করি।তাঁরা কোনও গণ্ডগোল কিংবা ঝামেলায় বিশ্বাসী নন।এই এলাকায় BJP একটা ভোটও পাবে না সেই বুঝেই নিজেরাই এই ঘটনা ঘটিয়েছে। এই ঘটনার সঙ্গে তৃণমূলের কোনও সম্পর্ক নেই’।তবে নির্বাচনের আগে এমন ঘটনায় রীতিমত চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়।গোটা ঘটনার সত্যতা নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে শান্তিপুর থানার পুলিশ।

 

 

 

 

কোথাও বিরোধী কর্মী সমর্থকদের মারধর বাড়ি ভাঙচুর,কোথাও অপহরণের অভিযোগ উঠেছে।প্রতিটি ক্ষেত্রেই প্রশাসনের বিরুদ্ধে পক্ষপাতিত্বর অভিযোগ তুলেছে বিরোধী শিবির।ঠিক এমন ভাবেই শান্তিপুরের ২৮ নম্বর পঞ্চায়েত সমিতির BJP প্রার্থী চঞ্চল চক্রবর্তীর বাড়ির সামনে সাদা কাপড়ের থান মিষ্টি,গীতা এবং তুলসী পাতা ফেলে যাওয়ায় নতুন করে চাঞ্চল্য ছড়াল।

 

 

 

 

আরও পড়ুন –   সায়নীকে টাকা দিয়েছেন? ঘনিষ্ঠ মহলে স্বীকার কুন্তলের

 

 

যদিও BJP প্রার্থী চঞ্চল চক্রবর্তী অভিযোগ করেন,‘শাসক দল বোঝাতে চাইছে যে আমি খুন হয়ে যেতে পারি।এর আগেও আমাকে একাধিকবার বিভিন্ন ভাবে হুমকি দেওয়া হয়েছে।কিন্তু আমি ছাত্র জীবন থেকে রাজনীতি করি।আমি এইসব হুমকিতে ভয় পাই না।তবে এই ঘটনায় স্বাভাবিকভাবে পরিবার কিছুটা হলেও আতঙ্কে রয়েছে’।এই ঘটনার পিছনে পুরোপুরি শাসক দল জড়িত বলেই BJP প্রার্থীর অভিযোগ।পুলিশকে গোটা বিষয়টি জানানো হয়েছে বলেও জানান।