দেশের একমাত্র মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, মহিলা সংরক্ষণ বিল নিয়ে কাকলী ঘোঘ দস্তিদার

দেশের একমাত্র মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, মহিলা সংরক্ষণ বিল নিয়ে কাকলী ঘোঘ দস্তিদার

মঙ্গলবার সংসদে পেশ হয়েছে মহিলা সংরক্ষণ বিল। আর তারপর আজ থেকে সংসদে শুরু বির্তক। পুরো দেশের মদ্ধ্যে বাংলা ছাড়া কোনও রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মহিলা নন। মহিলা সংরক্ষণের বিষয়ে কোনও গিমিক নয়, মহিলাদের প্রকৃত সম্মান দেওয়া হোক, এমনটাই চায় তৃণমূল কংগ্রেস। আর তাই, ২০১৪ সাল থেকেই তৃণমূল কংগ্রেস দলের অন্দরে ৩৩ শতাংশের বেশি সংরক্ষণ রয়েছে মহিলাদের জন্য। বিধানসভা, লোকসভা, বাংলার মন্ত্রীসভা – সব জায়গাতেই তৃণমূল মহিলা সদস্যদের সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়েছে। বুধবার (২০ সেপ্টেম্বর), লোকসভায় নারীশক্তি বন্ধন অধিনিয়মের উপর আলোচনায় অংশ নিয়ে, এমনটাই জানলেন তৃণমূল কংগ্রেস সাংসদ কাকলী ঘোষ দস্তিদার। নারীশক্তি বন্ধন অধিনিয়মকে সমর্থন করেছেন কাকলী। তবে তিনি সাফ জানিয়েছেন, এই বিল পাশের মাধ্যমে মহিলাদের প্রকৃত সম্মান দিতে হবে।

আরও পড়ুনঃ শিক্ষা দফতরের উদ্দ্যোগে আজ থেকে রাজ্যের ৯ লক্ষ পড়ুরাকে বিনামূল্যে আধার কার্ড তৈরির ক্যাম্প শুরু

এদিন তিনি জানান, দেশের একমাত্র রাজ্য বাংলা, যেখানে একজন মহিলা মুখ্যমন্ত্রী রয়েছেন। বিজেপিকে আক্রমণ করে তিনি বলেন, ১৬টি রাজ্যে ক্ষমতায় আছে বিজেপি। কিন্তু, একটি জায়গাতেও কোনও মহিলাকে মুখ্যমন্ত্রী করেনি গেরুয়া শিবির। তিনি জানান, ১৯৯৬ সালে প্রথম যখন এই বিলের বিষয়ে আলোচনা শুরু হয়েছিল, সেই সময় থেকেই এই বিলকে সমর্থন করেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দেবগৌড়া সরকার সেই সময় বিলটি বিবেচনার জন্য সিপিআই সাংসদ গীতা মুখোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে এক সংসদীয় প্যানেলে পাঠিয়েছিল। সেই, সংসদীয় কমিটির সদস্য ছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

 

তিনি আরও জানান, মহিলাদের ক্ষমতায়নে বরাবরই সক্রিয় ভূমিকা নিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বারাসাতের সাংসদ বলেন, “বিধানসভায় আমাদের সবথেকে বেশি মহিলা সদস্য আছেন। ভারতের মধ্যে বাংলার মন্ত্রিসভাতেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়-সহ মহিলা মন্ত্রীদের সংখ্যা সবথেকে বেশি।” তিনি জানান, বাংলায়, স্বাস্থ্য, আইন, শিল্পের মতো গুরুত্বপূর্ণ দফতরের দায়িত্বে আছেন মহিলারা। স্বরাষ্ট্র দফতরও এক মহিলার হাতে রয়েছে। কাকলী বলেন, “আমাদের দলের প্রতিটি স্তরে ২০১৪ থেকেই ৩৩ শতাংশের বেশি সংরক্ষণ রয়েছে মহিলাদের জন্য। লোকসভা ৪০ শতাংশের বেশি মহিলা সদস্য রয়েছে আমাদের। রাজ্যসভাতেও ছবিটা এক।” তিনি আরও বলেন, মহিলাদের ক্ষমতায়নের জন্য বাংলায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সরকার বহু প্রকল্পও চালু করেছেন।

 

প্রসঙ্গত, বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলিতে বর্তমানে একজনও মহিলা মুখ্যমন্ত্রী নেই। তবে, অতীতে উত্তর প্রদেশে উমা ভারতী, গুজরাটে আনন্দিবেন প্যাটেল, রাজস্থানে বসুন্ধরা রাজের মতো বিজেপি নেত্রীরা মুখ্যমন্ত্রী হয়েছেন। দেশকে প্রথম মহিলা প্রতিরক্ষামন্ত্রীও উপহার দিয়েছিল বিজেপি। প্রথম মোদী সরকারে প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের দায়িত্ব সামলেছিলেন নির্মলা সীতারামন। বর্তমানে তিনি অর্থমন্ত্রীর দায়িত্বে রয়েছেন।

en.wikipedia.org